ঈদ

ঈদুল ফিতর ২০২৪ কত তারিখ \ঈদ কবে

পবিত্র ঈদুল ফিতরের সম্ভাব্য তারিখ ঘোষণা করেছে। অনেকেই আছেন যারা গুগলে গিয়ে সার্চ করেন ২০২৪ সালের রোজার ঈদ কত তারিখে হবে? অথবা রমজানের ঈদ কবে হবে? ঈদ উল ফিতর কবে হবে। বাংলাদেশের মুসলমানরা সবচেয়ে বড় উৎসব হিসেবে বিবেচনা করেন ঈদ-উল ফিতরকে এবং এক কথায় সবার কাছে পরিচিত রোজা ঈদ হিসেবে।মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব হচ্ছে ঈদ। মুসলমানদের প্রতি বছরে দুইটি ঈদ রয়েছে। এর একটি ঈদ-উল ফিতর (রোজা ঈদ) আর অপরটি হচ্ছে ঈদ-উল আযাহা ( কোরবানি ঈদ)। এই সময় মুসলমানরা রোজা রাখে, দীনের পথে চলে, নামাজ কায়েম করে, সেহেরি ও ইফতার করা ইত্যাদির মাধ্যমে মুসলমানরা এই সময়টাকে অতিবাহিত করে থাকেন। ঈদ মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব হলেও পবিত্র ঈদুল ফিতর ও ঈদ-উল আযাহা।এই আর্টিকেল তাদের জন্যে খুবই উপকারী একটি আর্টিকেল হতে চলেছে। নিচে এই সমস্ত বিষয়ে আলোচনা করা হবে। অবশ্যই আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন।

ঈদুল ফিতর কত তারিখ ২০২৪

দীর্ঘ একমাস রমজান উপলক্ষে রোজা পালনের পর পালিত হয় খুশির ইদ-উল-ফিতর। প্রতি বছর ক্রমশ এগিয়ে আসছে ইদ-উল-ফিতরের সময়। খুশির ইদ পালিত হবে এপ্রিল মাসে। প্রতি বছরই খুশির ইদ অর্থাৎ ইদ-উল-ফিতর উপলক্ষে এক একটি দেশে ভিন্ন ভিন্ন দিন ছুটি ঘোষণা হয়। সম্প্রতি খুশির ইদের সম্ভাব্য তারিখ ঘোষণা করে সম্ভাব্য ২০২৪ সালের ক্যালেন্ডারের সরকারি ছুটির তালিকা অনুযায়ী ১০ এপ্রিল কিংবা ১১ এপ্রিল রোজার ঈদ বা ঈদুল ফিতর হতে পারে। যেহেতু রোজার ঈদ বা ঈদুল ফিতর চাঁদ দেখার ওপার নির্ভরশীল সেহেতু ৯ এপ্রিল সন্ধ্যায় চাঁদ দেখা গেলে ১০ এপ্রিল ঈদুল ফিতর অনুষ্ঠিত হবে।

ঈদুল ফিতর কবে ২০২৪

চাঁদ দেখার উপর ইদের দিনক্ষণ নির্ভর করে। তাই সৌদি আরব বা সংযুক্ত আরব আমিরশাহীর সঙ্গে একই দিনে ঈদ পালিত হয় না ক্ষেত্রে ঈদের দিন ঘোষণা করে চাঁদ দেখা গেলে অনুষ্ঠিত হবে। ইদের তারিখ।

আরো পড়ুন,

রমজান মাসের সময়সূচি , সাহ্‌রি ও ইফতারের সময়সূচি / রমজান মাসের ক্যালেন্ডার ডাউনলোড

পহেলা বৈশাখের শুভেচ্ছা বার্তা, এসএমএস ,স্ট্যাটাস ও ক্যাপশন, ছবি SMS।

মেহেদি ডিজাইন ছবি ,মেয়েদের হাতের মেহেদি ডিজাইন ,ডাউনলোড

Liton Roy

আমি লিটন রায়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলা বিভাগ হতে স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর ডিগ্রি সম্পন্ন করে 2018 সাল থেকে সমাজের অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক, সামাজিক,মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি অবলোকন করে- জীবনকে পরিপূর্ণ আঙ্গিকে নতুন করে সাজানোর আশাবাদী। নতুনের প্রতি মানুষের আকর্ষণ চিরস্থায়ী- তাই নবরুপ ওয়েবসাইটে নিয়মিত লেখালেখি করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *