উক্তি

কন্যা সন্তান নিয়ে ইসলামিক উক্তি,স্ট্যাটাস

কন্যা সন্তান নিয়ে ইসলামিক উক্তি,স্ট্যাটাস অশুভ বা অকল্যাণকর নয়, বরং কন্যাসন্তান জন্ম নেওয়া সৌভাগ্যের নিদর্শন। হজরত আয়েশা (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন, ওই স্ত্রী স্বামীর জন্য অধিক বরকতময় যার দেনমোহরের পরিমাণ কম হয় এবং যার প্রথম সন্তান হয় মেয়ে। তাই কোন মুসলমানের এই প্রথার সঙ্গে কোনরূপ সামঞ্জস্য থাকা উচিত নয়।

কন্যা আল্লাহর পক্ষ থেকে একটি শ্রেষ্ঠ উপহার। শিশুটি ছেলে হোক বা মেয়ে, সব শিশুই মা বাবার প্রিয়। অল্পবয়সিদের সূচনা দেওয়ার মাধ্যমে বিবাহের অস্তিত্ব পূর্ণ হয়। আমাদের সমাজে অনেক মানুষ আছে যারা কন্যাশিশু পছন্দ করেন না। সমাজের মধ্যে অনেক মানুষ আছে যাদের ছেলেদের খুব প্রয়োজন। কিন্তু মানুষ এখন বুঝতে পারে না যে ঈশ্বরের কাছ থেকে কন্যা একটি আশীর্বাদ কত চমৎকার। কন্যা একটি জান্নাত। আপনি যদি আপনার মেয়েকে ইসলামিক পদ্ধতিতে বোঝাতে পারেন তবে আপনার জান্নাত নিশ্চিত। তাই আজকাল অনেক ভাই-বোন আছেন যারা মেয়েদের সম্পর্কে ইসলামিক উক্তিগুলির জন্য লাইনে অনুসন্ধান করেন। তাই একেবারে নতুন প্রকাশে আমি কন্যা সম্পর্কে কিছু ইসলামিক উক্তি শতাংশ দিতে সক্ষম।

কন্যা সন্তান নিয়ে ইসলামিক উক্তি – স্ট্যাটাস

কন্যা সন্তানের বাবা-মা হওয়া পরম সওয়াব ও সৌভাগ্যের।

নিঃসন্দেহে ‘কন্যা সন্তান’ বাবাদের জন্য। আল্লাহর পক্ষ থেকে এক‌টি বিশেষ উপহার।

কন্যা সন্তান পরিবারের বোঝা নয় বরং বংশের আলো।

কন্যা সন্তান মা-বাবার জন্য যে সুসংবাদ নিয়ে আসে।

কন্যা সন্তান আল্লাহর রহমত।

কন্যা সন্তান আল্লাহর দান। এমন সন্তান জন্ম হোক প্রতিটি বিশ্বের ঘরে ঘরে।

যাদের ঘরে কন্যা সন্তান আছে তারা কত ভাগ্যবান দেখুন নিরাশ হবেন না কন্যা সন্তান নিয়ে।

কন্যা সন্তানের আগমন কি সত্যিই সুসংবাদ প্রথম সন্তান মেয়ে হলে বয়ে আনে সৌভাগ্য।

কন্যা সন্তান ৩টি পুরস্কার নিয়ে দুনিয়াতে আসে | কন্যা সন্তান আল্লাহর শ্রেষ্ঠ নেয়ামত।

কন্যা সন্তান ছাড়া প্রতিটি ঘরই অপূর্ণ।

মেয়ে সন্তান যে ঘরে আসে কন্যা সন্তান তিনটি পুরস্কার নিয়ে দুনিয়াতে আসেন।

আল্লাহ যখন বেশী খুশি হন তখনি কন্যা সন্তান দান করেন আলহামদুলিল্লাহ।

কন্যা সন্তান আল্লাহর দান যার একটি কন্যা সন্তান হবে সে একটি জান্নাত পাবে।

কন্যা সন্তান সবার হয় না যার হয় সে পৃথিবীর ভাগ্যবান পিতা কন্যা সন্তান আল্লাহর দেওয়া সেরা উপহার।

যে ঘরে কন্যা সন্তান জন্ম নেয়, সেখানে সর্বদা সৌভাগ্য বিরাজ করে। একজন

কন্যা তার পিতার হৃদয়ে বাস করে এবং মায়ের সত্যিকারের বন্ধু হয়ে ওঠে।

মেয়ে সন্তান আল্লাহর দেওয়া একটা নিয়ামত।

আমাদের সমাজটা বড়ই অদ্ভুত গর্ভে কন্যা সন্তান চায় না। কিন্তু ছেলের বিয়ের জন্য সুন্দরী মেয়ে চায়।

কন্যা সন্তান নিয়ে স্ট্যাটাস

আমাদের ইসলাম ধর্মের হাদিসের মধ্যে এটি এতদূর বর্ণনা করা হয়েছে যে তার মতো অন্য কোন আকাঙ্খিত ব্যক্তি হতে পারে না যে তার জীবনধারায় প্রাথমিক বর্ণ সন্ধানী। কারণ তাকে প্রথমে জান্নাত কন্যা দেওয়া হয়েছিল। ঈশ্বরের কাছে পুরো জিনিসটি সুন্দর তবে আপনি যদি একটি মহিলা সন্তান পান তবে আপনি ঈশ্বরের প্রথম শ্রেণীর চাল পাবেন। সমাজের অভ্যন্তরে এমন অনেক লোক রয়েছে যারা একটি মহিলা শিশুর সাথে খুশি হয় না। প্রকৃতপক্ষে, তারা বোঝে না যে একটি কন্যা ঈশ্বরের একটি অসামান্য আশীর্বাদ। তারা মোটামুটি ইসলাম অনুধাবন করতে পারে না তাই বলে। তাই শিখুন কিভাবে আমাদের মধ্যে যাদের কন্যাসন্তান আছে তাদের ভালোবাসতে হয় কারণ তারা প্রতিটি জান্নাত।

কন্যা সন্তান হলো একজন বাবার জন্য পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ উপহার । আলহামদুলিল্লাহ্‌ আমি একজন কন্যা সন্তানের বাবা ।

কন্যা সন্তান হলো যেকোন ঘরের জন্য বরকত । সে সন্তানকে মানুষের মত মানুষ করতে একজন আদর্শ পিতা হতে হবে । আল্লাহ্‌ আমাকে একজন আদর্শ পিতা হওয়ার তাউফিক দিন । আমীন ।

সাধারণত প্রতিটি মায়ের কাছে প্রিয় থাকে তার ছেলে সন্তান আর বাবার কাছে প্রিয় থাকে তার কন্যা সন্তান । তবে উভয়ের জন্যই পিতামাতার সমান ভালোবাসা থাকে ।

আল্লাহ্‌ অনেক খুশী হলে মানুষকে কি উপহার দেয় জানেন ? কন্যা সন্তান । হাঁ এটাই ইসলাম এটাই সত্য ।

একজন আদর্শ বাবার কাছে তার কন্যা সন্তান হলো তার রাজ কন্যা । সে তার রাজ কন্যা কে সুখী করতে জীবনের অনেক কিছুই ত্যাগ করতে প্রস্তুত থাকে ।

আপনার যদি একজন কন্যা সন্তান থাকে, আপনার জীবনে আর কিছু দরকার নেই । কারণ আপনার সকল বিপদ আপদে সেই এগিয়ে আসবে সবার আগে ।

হাদিসে বলা হয়েছে যার একটি কন্যা সন্তান আছে, সে একটি জান্নাতের মালিক হয়ে গেলো । তবে সে তার কন্যাটিকে একজন আদর্শ মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে হবে ।

একটি মেয়ে অনেক গরীব অনেক কালো হতে পারে কিন্তু সে তার বাবার কাছে রাজকন্যা ।

কন্যা সন্তান কখনোই বোঝা নয়, সঠিক যত্ন পেলে একটি মেয়ে একটি সমাজকে পাল্টে দিতে পারে ।

একজন কন্যা সন্তানের বাবা হিসেবে আমি গর্বিত কারণ আল্লাহ্‌ এর মধ্যেই আমার মঙ্গল রেখেছেন । সবাই দোয়া করবেন আমি যেন একজন আদর্শ পিতা হতে পারি ।

আপনার যদি একজন কন্যা সন্তান থাকে, আপনার জীবনে আর কিছু দরকার নেই । কারণ আপনার সকল বিপদ আপদে সেই এগিয়ে আসবে সবার আগে ।

একজন বাবা হিসেবে আমার কন্যা সন্তানের উপর আমার অনেক দায়িত্ব, তাই আমাকে একজন আদর্শ বাবা হতে হবে ।

আপনি আপনার কন্যা সন্তানের যত্ন না নিলেও সে কিন্তু আপনার যত্ন ঠিকই নিবে । কারণ সকল বাবার কন্যারা এমনই হয়ে থাকে ।

একটি কন্যা সন্তান আল্লাহ্‌র পক্ষ থেকে অনেক বড় নেয়ামত, আলহামদুলিল্লাহ্‌ আমি সেই নেয়ামতের মালিক ।

একজন বাবার যত্ন নেয়ার জন্য, তার কন্যার চেয়ে বেশী আর কেউ উপযুক্ত নয় । মেয়েরা তার বাবার ব্যাপারে সবকিছু এক করে দিতে পারে ।

কন্যা সন্তান নিয়ে উক্তি

যে ঘরে প্রথম সন্তান কন্যা সেই ঘর বেশি আলোকিত হযরত আলী

প্রত্যেকটি মেয়েই তাঁর বাবার জীবনের এক অবিচ্ছেদ্য অংশ হয়। তাই তো বাবাদের কাছে তাঁর মেয়েরা হয় অমূল্য সম্পদ।

কন্যা সন্তান সবার হয় না যার হয় সেই সব থেকে ভাগ্যবান ।

অনেকেই কন্যা সন্তান চায় না কিন্তু একজন মেয়ে তার বাবা মাকে যে পরিমাণ ভালোবাসতে পারে তা একটি ছেলে শত চেষ্টা করলেও পারেনা ।

কন্যারা ফুলের মতো তারা বিশ্বকে সৌন্দর্য ভরিয়ে দেয় ।

হযরত আয়েশা রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত হয়েছে রাসূলুল্লাহ সাল্লাম ইরশাদ করেন স্বামীর জন্য বরকতময় যার দেনমোহরের পরিমাণ কম হয় এবং প্রথম সন্তান হয় মেয়ে

মা এবং কন্যা গুলি একসাথে গণনা করা একটি শক্তিশালী শক্তি মেলিয়া কিতন দিব্বি

মা এবং কন্যা গুলি একসাথে গণনা করা একটি শক্তি শালী শক্তি। – মেলিয়া কিটন-ডিগবি

রাসূলুল্লাহ সাল্লাম বলেছেন যে ব্যক্তি তিনটি কন্যা সন্তান হবে এবং সে তাদেরকে দ্বীনি শিক্ষা দিবে এবং যত্নের সাথে লালন পালন করবে ও তাদের উপর অনুগ্রহ করবে সেই ব্যক্তির উপর অবশ্যই জান্নাত ওয়াজিব হয়ে যাবে সুবহানাল্লাহ

প্রথম কন্যা সন্তান হলো সৃষ্টির সেরা উপহার ………………

আরো পড়ুন,

ভালোবাসার রোমান্টিক কথা ,গল্প ও ছবি,Romantic love story 

বাংলা দুঃখের উক্তি ,স্ট্যাটাস ও কবিতা

বাবাকে নিয়ে স্ট্যাটাস ,উক্তি ও কবিতা 

Liton Roy

আমি লিটন রায়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলা বিভাগ হতে স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর ডিগ্রি সম্পন্ন করে 2018 সাল থেকে সমাজের অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক, সামাজিক,মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি অবলোকন করে- জীবনকে পরিপূর্ণ আঙ্গিকে নতুন করে সাজানোর আশাবাদী। নতুনের প্রতি মানুষের আকর্ষণ চিরস্থায়ী- তাই নবরুপ ওয়েবসাইটে নিয়মিত লেখালেখি করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *