হাসপাতাল

উচ্চ রক্তচাপ বা হাইপারটেনশনের কারণ , লক্ষণ, প্রতিকার ও প্রতিরোধ

হাইপার টেনশন বা উচ্চ রক্তচাপ একটি সাধারণ সমস্যায় পরিণত হয়েছে। উচ্চ রক্তচাপ হতে পারে নানান কারণে। অনিয়মিত জীবনযাপন ।খাবারের ভিন্নতা এর প্রধান কারণ। আজকের এই নিবন্ধে আমরা উচ্চ রক্তচাপ বা হাইপারটেনশন নিয়ে আলোচনা করতে যাচ্ছি। হাইপার টেনশন বা উচ্চ রক্তচাপের কারণ, প্রতিকার সহ বিস্তারিত এই নিবন্ধন আলোচনা করা হবে।

উচ্চ রক্তচাপ একটি নীরব ঘাতক। উচ্চ রক্তচাপকে নীরব ঘটক বলা হয় কারণ অনেক সময় এই রোগ পরীক্ষা-নিরীক্ষার মাধ্যমে ধরা পড়ে না। বিশেষ কিছু লক্ষণ দেখা দিলে বুঝতে হবে আপনি হাইপার টেনশনে ভুগছেন। নিচে হাইপার টেনশনের লক্ষণগুলো আলোচনা করা হবে।

একজন রোগী হাইকোর্টের টেনশনে ভুগছেন এই কথা মেনে নেওয়ার আগে সেই রোগীকে কমপক্ষে তিন দিন আলাদা আলাদা সময় রক্তচাপ মাপা দরকার। তিন দিন আলাদা আলাদা সময় তার রক্তচাপ মেপে যদি স্বাভাবিকের থেকে বেশি রক্তচাপ পাওয়া যায় তাহলে মোটামুটি নিশ্চিত ভাবে বলা যায় সেই রোগীটি হাইপার টেনশনে ভুগছেন।

উচ্চ রক্তচাপ

হাইপার টেনশন যেকোনো বয়সী রোগী আক্রান্ত হতে পারে। কিন্তু কম বয়সী রোগী হাইপার টেনশনে খুব কম পরিমাণ আক্রান্ত হয়। সাধারণত ৪০ বছর পেরিয়ে গেলে হাইপার টেনশনে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। হাইপার টেনশনে আক্রান্ত হলে চিন্তিত হওয়ার কোন কারণ নেই ।কারণ, সঠিক চিকিৎসা পেলে হাইপারটেনশন নির্মূল করা যায়। হাইপার টেনশনে আক্রান্ত ব্যক্তিদের জীবন যাপন সম্পর্কে একটু সতর্কতা অবলম্বন করা প্রয়োজন তার খাদ্য অভ্যাসের উপর সতর্কতার খুব জরুরী। খাদ্যাভ্যাস পরিবর্তন করে কাঁচা শাক সবজির উপর বেশ গুরুত্ব দেওয়া প্রয়োজন। তাহলে হাইপারটেনশন থেকে অনেকটা মুক্ত হওয়া যায়।

উচ্চ রক্তচাপের কারণ

নানান কারণে একজন রোগী উচ্চ রক্তচাপে ভুগতে পারে। কতগুলো বিষয় উপর সঠিকভাবে পর্যালোচনা করে দেখা গিয়েছে হাইপারটেনশন বা উচ্চ রক্তচাপের কারণগুলো চিহ্নিত করা হয়েছে।

উচ্চ রক্তচাপের লক্ষণ

আপনার শরীরে কতগুলো নিয়ামক দেখে উচ্চ রক্তচাপ হিসেবে নিশ্চিত হওয়া যায়। আমরা পূর্বেই আলোচনা করেছি উচ্চ রক্তচাপ রোগীর লক্ষণগুলো প্রকাশ পেলে তার পরপর তিনদিন বিভিন্ন সময় রক্তচাপ মেপে মোটামুটি নিশ্চিত হওয়া যায়। এছাড়াও একজন হাইপারটেনশন রোগীর কথাগুলো লক্ষণ প্রকাশ পায়। নিচে লক্ষণগুলো সম্পর্কে আপনাদের অবগত করা হলো।

  • চোখে ঝাপসা দেখা ।
  • বমি হওয়া ।
  • নিঃশ্বাস নিতে কষ্ট হওয়া ।
  • নাক দিয়ে রক্ত পড়াণ,
  • এক্ষেত্রে দেরি না করে হাসপাতালে যাওয়া উচিত ।
গ্রীন লাইফ হাসপাতাল ঢাকা। হট লাইন নাম্বার, অ্যাপোয়েন্টমেন্ট, অবস্থান, ঠিকানা 

উচ্চ রক্তচাপের প্রতিরোধ

কথায় বলে প্রতিকারের চেয়ে প্রতিরোধেই শ্রেয়। উচ্চ রক্তচাপ প্রতিরোধ করার জন্য বেশ কিছু বিষয় আপনাদের মাথায় রাখতে হবে। আপনার খাদ্যাভ্যাস পরিবর্তন করতে হবে সেই সাথে খাদ্য তালিকায় প্রচুর পরিমাণে শাকসবজি রাখতে হবে। কিভাবে উচ্চ রক্তচাপ প্রতিরোধ করবেন সেই সম্পর্কে নিজে বিস্তারিত তুলে ধরেছি।

  • কাঁচা লবণ খাওয়া কমাতে হবে ।
  • ওজন বেশি হলে কমাতে হবে ।
  • নিয়মিত হাঁটাচলা করতে হবে ।
  • ধূমপান অবশ্যই বন্ধ করতে হবে ।
  • সয়া সস পরিবার করতে হবে
  • অতিরিক্ত মাংস তেলযুক্ত খাবার খেয়ে লুসি আইসক্রিম খাওয়া যাবেনা ।
  • ডিমের কুসুম  ,খাসির মাংস , গরুর মাংস  ,কোলেস্ট্রল বাড়ায় তাই এগুলো খাওয়া থেকে বিরত থাকুন ।
  • চাটনি  ,আচার  ,প্রচুর পরিমাণ তেল থাকে এগুলো পথ পরিহার করতে হবে এগুলো উচ্চ রক্তচাপের জন্য খুবই ক্ষতিকর ।

উচ্চ রক্তচাপের প্রতিকার

আপনার শরীরে উচ্চ রক্তচাপের প্রকাশিত হলে আপনি নিম্নোক্তভাবে প্রতিরোধ করতে পারেন। আপনাকে অবশ্যই খাদ্যা পাস পরিবর্তন করতে হবে সেই সাথে খাদ্য তালিকায় প্রচুর পরিমাণে শাকসবজি এবং পর্যাপ্ত পানি রাখতে হবে। প্রতিদিন পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি পার করবেন সেই সাথে বিভিন্ন প্রকার ফলমূল আপনার খাদ্য তালিকায় রাখতে হবে। চর্বিযুক্ত খাবার বা প্রচুর ক্যালোরি আছে এমন খাবার পরিহার করতে হবে।

খাদ্য তালিকায় প্রচুর পরিমাণে শাকসবজি রাখবেন ।যেমন: পালং শাক , কলমি শাক , মুলা শাক , বাঁধাকপি , ফুলকপি , টমেটো , শশা ,  বেগুন , কুমড়া ইত্যাদি। এছাড়া পটাশিয়ামযুক্ত খাবার যেমন: ডাবের পানি কলা টমেটো সহ কিছু শাকসবজি যেগুলোতে প্রচুর পরিমাণ পটাশিয়াম আছে সেগুলো খাদ্য তালিকায় রাখবেন। আপনি যদি উচ্চ রক্তচাপে ভাববেন তাহলে অবশ্যই একজন বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ মোতাবেক চলার চেষ্টা করবেন। ডাক্তারের প্রেসক্রিপশন অনুযায়ী নিয়মিত উচ্চ রক্তচাপের ওষুধ খাওয়ার চেষ্টা করবেন।

আমরা এই নিবন্ধে বিভিন্ন প্রকার বিষয় নিয়ে পোস্ট পাবলিস্ট করে থাকি। আপনি যদি এরকম আকর্ষণীয় এবং দরকারী বিষয় নিয়মিত আপডেট পেতে চান তাহলে আমাদের এই সাইটের সাথে থাকবেন ধন্যবাদ।

আরো পড়ুন,

গাইনি ডাক্তারের তালিকা রংপুর 

হ্যাপি ফ্রেন্ডশিপ ডে -মেসেজ ,ক্যাপশন ,পিক -SMS-friendship day

সময় নিয়ে উক্তি ,স্ট্যাটাস, বাণী ,ও কিছু কথা

Liton Roy

আমি লিটন রায়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলা বিভাগ হতে স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর ডিগ্রি সম্পন্ন করে 2018 সাল থেকে সমাজের অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক, সামাজিক,মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি অবলোকন করে- জীবনকে পরিপূর্ণ আঙ্গিকে নতুন করে সাজানোর আশাবাদী। নতুনের প্রতি মানুষের আকর্ষণ চিরস্থায়ী- তাই নবরুপ ওয়েবসাইটে নিয়মিত লেখালেখি করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *